আজ রাতে ইতালিসহ ইউরোপে ১ ঘন্টা সময় এগিয়ে মধ্য ইউরোপীয় গ্রীষ্মকালীন সময় চালু করা হবে। এটা চালু থাকবে আগামী অক্টোবর শেষ শনিবার পর্যন্ত। প্রতি বছরই এই পরিবর্তন আনা হয় ইউরোপের ঘড়িতে।

ইউরোপ II সম্পাদনা ডেস্ক:

আজ রাত দুইটায় অর্থাৎ প্রতিবছর মার্চ মাসের শেষ শনিবার রাতে এবং রবিবারের শুরুর দিকে ঘড়ির কাঁটা এক ঘন্টা এগিয়ে দিয়ে গ্রীষ্মকালীন সময় চালু করা হয়। আবার অক্টোবর মাসে ঘড়ির কাঁটা এক ঘন্টা পিছিয়ে পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে নেওয়া হয়।

বছরে দুবার ‘ডে লাইট সেভিং’ বা সূর্যের আলোর সুবিধাকে অধিক সময় ধরে ব‍্যবহারের জন‍্য ঘড়ির কাঁটায় এই পরিবর্তন আনা হয়। সে হিসেবে রবিবার দিবাগত রাত দুইটার সময় ঘড়ির কাঁটা তিনটার কাঁটায় এগিয়ে নেওয়া হবে।

অধিক সময় ধরে সূর্যের আলোর ব্যবহারের লক্ষ্যে ইউরোপে বছরে দুবার এ ডে লাইট সেভিং পদ্ধতি অনুসরণ করার জন্য ঘড়ির কাঁটা একবার এক ঘণ্টা সামনে ও আরেকবার এক ঘণ্টা পেছনে পরিবর্তন করা হয়। প্রতি গ্রীষ্ম ও শীতকালে সূর্যাস্ত এবং সূর্যোদয়ের ওপর ভিত্তি করে এই পরিবর্তন আনা হয়।

এবিষয়ে আরও জানতে পড়ুন: https://early-star.com/2020/10/24/আজ-রাতে-পিছিয়ে-দেওয়া-হচ/

প্রথম মহাযুদ্ধের সময়ে আমেরিকাসহ ইউরোপ এর একাংশজুড়ে দিনের আলো সাশ্রয়ের উদ্দেশ‍্যে উক্ত ‘ডে লাইট সেভিং’ চালু করা হয়েছিল।

প্রযুক্তিনির্ভর বর্তমান বিশ্বে ইন্টারনেট সংযুক্ত ঘড়ি, টেলিভিশন, এনড্রোয়েড় কিংবা আ্যাপল ডিভাইসে বা অন্য কোনও ধরনের স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে এ সময় বদলে যায়।

উল্লেখ‍্য, বর্তমান সময় অনুযায়ী বাংলাদেশের সাথে ইতালির সময়ের মধ‍্যে ৫ ঘন্টা ব‍্যবধান রয়েছে এবং আগামীকাল থেকে এক ঘন্টা কমে ব‍্যবধান থাকবে ৪ ঘন্টার।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.