আমেরিকাকে সমস্ত নিষেধাজ্ঞা তুলতে হবে পরমাণু সমঝোতায় ফেরার আগে!

ম‍ধ‍্যপ্রাচ‍্য II লামিয়া রহমান, প্রদায়ক:

২০১৫ সালে সই হওয়া পরমাণু সমঝোতায় ফেরার আগে অবশ্যই আমেরিকাকে ইরানের ওপর আরোপিত সমস্ত অবৈধ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে হবে। এবং এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয়টিও প্রমাণযোগ্য গ্রহনযোগ্য হতে হবে বলে জানান ইরানের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্বাস আরাকচি।

গতকাল শুক্রবার এক সাক্ষাৎকারে আব্বাস আরাকচি এসব বিষয়ে কথা বলেন।

তিনি পরমাণু সমঝোতার ভবিষ্যৎ নিয়ে ইরান সরকারের বর্তমান অবস্থান খোলাখুলি ভাবে তুলে ধরেন।

ইরানের বিরুদ্ধে আমেরিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে সমস্ত নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিলেন তা বহাল রয়েছে এবং তার সবগুলো অবশ্যই প্রত্যাহার করতে হবে।

২০১৮ সালের মে মাসে আমেরিকান সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকাকে বের করে আনেন এবং ইরান-বিরোধী নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করেন পাশাপাশি ইরানের বিরুদ্ধে নতুন বহু নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন।

কিন্তু জার্মানি, চীন, ব্রিটেন, রাশ, ফ্রান্স ও সমঝোতায় টিকে ছিলো,তবে সমঝোতা পরিপূর্ণ বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে ইউরোপের দেশগুলো গড়িমসি করেছিলো।

আমেরিকাকে এইসব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে কড়া হুশিয়ার দিয়ে তিনি বলেন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার বাস্তবে করতে হবে,বুলি আউড়ালে বা কাগজে কলমে করলো হবেনা।

তিনি আরও বলেন, আমরা যদি মনে করতে পারি যে নিষেধাজ্ঞা উঠে গেছে তখন আমরা আমাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের দিকে এগিয়ে যাব।

বর্তমানে ইরানের জাতীয় সংসদ গত ডিসেম্বর মাসে এক আইন পাস করেন, যাতে বলা যে যদি আগামী ২১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ইরানের ওপর থেকে সমস্ত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা না হয় তাহলে পরমাণু সমঝোতায় দেয়া সব প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন স্থগিত করবে ইরান।

এরই সাথে ইরান সরকারকে ২০ মাত্রার ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের নির্দেশ দেয়া হয় এই আইনে। ইরান সরকার এ নির্দেশনার বাস্তবায়নে আরাক ও নাতাঞ্জ নামক পরমাণু স্থাপনায় ২০ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের কাজ শুরু করেছে দিয়েছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.