এই তো স্বাধীনতার ৫০টি বছর পেরিয়ে গেলো,

তবুও এখনো স্বাধীনতা শব্দটি আমাদের কাছে অর্থহীনই রয়ে গেলো!

এখনো এখানে চলে শোষণ শাসন

নানাভাবে নানা ছলে,

এখনো এখানে ধর্ষিতা নারীর আর্তনাদে

 ভারী হয় বাতাস,

শুধুই কী মানুষ! রাতের আকাশের

 জোনাকিপোকারা ও স্বাক্ষী আছে তার। 

এখানে হত্যা, গুম ও খুন এখন কোনো 

অস্বাভাবিক  ব্যাপারই নয় যেনো আর। 

এখনো এখানে ক্ষুধার্ত মানুষের অসহায় অবস্থাকেই পুঁজি করে চলে ডিজিটাল বাণিজ্য,

এখনো এদেশে সরকারি চাকরি কিংবা রাজনীতি করে শুনি কেউ কেউ 

বিদেশী ব্যাংকে  টাকার পাহাড় গড়েছে এবং বেগমপাড়ায় আলিশান বসত গড়েছে 

অথচ সাধারণ মানুষের খানসামাপাড়ায়ই জায়গা হয় না থাকার।

মাঝেমাঝে মনে হয় এদেশের দূর্নীতিবাজ আমলা ও নেতাদের চেয়ে শরৎবাবু’র

 দেবদাস উপন্যাসের

চূণীলালের চরিত্রটা অনেক ভালো । 

এখনো এদেশে তাই তো প্রিয় কবি

 নির্মলেন্দু গুণের কোনো এক কবিতার

বিখ্যাত লাইন, 

” জনগণ কবিতা বোঝেনা, দ্রব্যমূল্য বোঝে  ”   ধ্রুব সত্যিই হয়ে রইলো।

আহা! স্বাধীনতা, আমার স্বাধীনতা!

বাক স্বাধীনতার অভাবে নির্মমতায় মরলো বুয়েটে পড়ুয়া মেধাবী আবরার, 

কে না জানে তা! তাই তো মনে হয় তুমি এখনো অচেনাই রয়ে গেলে আমার! 

অথচ রাস্তাঘাট, এভিনিউ, বহুতলা বিশিষ্ট মার্কেট, অনেক কটা পাঁচতারকা হোটেল,

শপিংমল, উড়ালসেতু, যমুনা বহুমূখী সেতু,

 পদ্মা সেতু থেকে শুরু করে মেট্রোরেল!

 কতো কিছুই তো দেখলাম! একজীবনে। 

শুধু তোমাকেই দেখলাম না কেবলমাত্র 

লালসবুজের নেতিয়ে থাকা পতাকা ছাড়া।

অথচ তোমাকে পাবার জন্য ৩০লক্ষ প্রাণের বলিদান হলো, সম্ভ্রম হারালো কতো যুবতী নারী, বঙ্গবন্ধুর জীবন থেকে হারিয়ে গেলো ১৩টি বছর জেলখানার অন্ধকার প্রকোষ্ঠে এবং অবশেষে জীবনটাই চলে গেলো নির্মম হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে,

তবুও তুমি এখনো অচেনাই রয়ে গেলে আমজনতার কাছে।

আহা! স্বাধীনতা, আমার স্বাধীনতা!

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.