জন্মসূত্রে ইতালীয় নাগরিকত্ব
ইতালিকে তার নাগরিকত্ব আইন সংস্কারের আহ্বান জানিয়েছে ইউনিসেফ। জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা একটি জন্মগত অধিকার আইন দাবি করেছে, যা ইতালিতে বসবাসরত অভিবাসী পরিবারগুলোর বহু বছরের স্বপ্ন।

ইতালির আইন-কানুন II শাহারিয়া রহমান, প্রদায়ক:

ইতালিকে তার নাগরিকত্ব আইন সংস্কারের আহ্বান জানিয়েছে ইউনিসেফ। জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা একটি জন্মগত অধিকার আইন দাবি করেছে (আইনটি “জাস সোলি” নামেও পরিচিত), যা অভিবাসী এবং শরণার্থী পরিবারের শিশুদের ইতালীয় নাগরিকত্ব প্রদান করবে।

বুধবার ইতালীয় সংবাদ সংস্থা এএনএসএ (ANSA)-এর সাথে এক সাক্ষাৎকারে ইউনিসেফের ইতালির মুখপাত্র আন্ড্রেয়া আইয়াকোমিনি বলেছেন, শিশু অধিকার সম্পর্কিত জাতিসংঘের কনভেনশন অনুমোদনের প্রায় ত্রিশ বছর পরে, “অনেক কিছু করা হয়েছে, তবে এখনও অনেক কিছু করার আছে।”

আইয়াকোমিনি বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে জাস সোলি নিয়ে আলোচনা করতে চাই। ইতালিতে জন্মগ্রহণকারী প্রত্যেককে ইতালীয় নাগরিকত্ব প্রদান করা উচিত। প্রসঙ্গত, জাস সোলি হচ্ছে জন্মসূত্রে নাগরিকত্বের একটি শর্ত।

ইতালিতে অভিবাসীপন্থী সংগঠন এবং ইতালির ডেমোক্র্যাটিক পার্টি জাস সোলি প্রবর্তন করে নাগরিকত্ব আইন সংস্কারের জন্য চাপ দিচ্ছে। অন্যদিকে ডানপন্থী দলগুলি – বিশেষত মাত্তেও সালভিনির লীগ পার্টি – এর বিরুধীতা করছে। ইতালিতে এই বিষয়টি নিয়ে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা রয়েছে।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিওতে এবং এরকম আরও ভিডিও পেতে চ‍্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ইতালিতে জন্ম নেওয়া শিশুদের নাগরিকত্ব চায় ইউনিসেফ

আইয়াকোমিনি বলেছেন, “আমরা আশা করি যে কট্টর ‘গেরিলা যুদ্ধ’ শেষ হয়েছে। টেবিলে বসে আবার শান্তভাবে কথা বলার জন্য রাজনীতিবিদরা আমাদের এই উপহারটি উপহার দিতে পারেন বলে আমরা আশাবাদী।”

আইয়াকোমিনি ভূমধ্যসাগরীয় অভিবাসীদের উদ্ধার সম্পর্কে ইতালির নীতি সম্পর্কেও আশা প্রকাশ করেন।

ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি সম্প্রতি মৃত শিশুদের ছবি নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন এবং বলেছেন যে, “লিবিয়ার একটি সৈকতে মৃত বাচ্চাদের লাশের চিত্র গ্রহণযোগ্য নয়।”

উল্লেখ‍্য, অভিবাসী পিতা-মাতার ঘরে ইতালিতে জন্মগ্রহণ করা প্রায় এক মিলিয়ন শিশু রয়েছে, যারা তাদের পরিবারের সাথে ইতালিতে বেড়ে উঠছে, ইতালীয় স্কুলে পড়ালেখা করছে এবং ইতালীয় ভাষায় কথা বলছে কিন্তু তাঁরা ইতালীয় নাগরিকত্ব অধিকার থেকে বঞ্চিত।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.