একবিংশ শতাব্দিতে এসে এক কপি বইয়ের দাম ৩লাখ টাকা! চোখ চড়কগাছ হওয়ার জোগাড়! এটা কোন এন্টিক বই নয়, বর্তমান সময়ের লেখা বই। বইয়ের সাথে থাকবে না কোনো স্বর্ণালংকার জাতীয় কিছুই।

আলামিন সিকদার ইরাজ, বার্তা কক্ষ:

এতকিছুর পরও ভাবছেন, তাহলে এক কপি বইয়ের দাম ৩ লাখ টাকা কিভাবে হয়? এখনো বিশ্বাস করতে পারছেন না? হ্যাঁ এটাই সত্যি তাহলে শুনুন….

লেখক, গবেষক এবং আর্ট কিউরেটর এবাদুর রহমানের তৃতীয় উপন্যাস “মজনু শাহ ফকিরা”। যেটি লেখক প্রায় ১৬ বছর ধরে লিখেছেন। উপন্যাসটি ছাপা হবে মাত্র ১৭ কপি। যার একটি কপির দাম পড়বে তিন লাখ টাকা।

বাংলাদেশীরাও ইচ্ছা করলে কিনতে পারবেন এই বই। এর জন্য দাম ধরা হয়েছে ১লাখ ১০ হাজার টাকা। এরকম আরও তথ্য জানিয়ে লেখক পোস্ট করেছেন তার ব্যক্তিগত ফেসবুক ওয়ালে।

তিনি আরো জানিয়েছেন, মাত্র ১৭ কপি ছাপা হবে বইটি। এরপর আর কখনোই বইটি ছাপা হবে না। এছাড়া তিনি বইটি ভারতীয়দের কাছে বিক্রি করবেন না। একজন ব্যক্তি সর্বোচ্চ দুই কপি বই কিনতে পারবেন।

যারা অপরিচিত, বই কেনার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করবেন; তাদের ক্ষেত্রে তিনি জানিয়েছেন, আমি আপনাদের সাথে আলাপ করব। অন্তত একবার বসে খাওয়া দাওয়া করব ।তারপর আমার ইচ্ছে হলে দিব, না হলে দিবো না।

বইটি বিশেষ প্রদর্শনী করে এর মোড়ক উন্মোচন করবেন তিনি। তবে বইটি মুদ্রণ বাঁধাই কোন প্রেসে ছাপা হবে না বইটি।

এর ফ্রন্ট এর নকশা করা হয়েছে ভিন্নভাবে। এসিড ফ্রী কাগজে, জাফরান ও মধু মিশ্রিত তাবিজ লেখার একটি বিশেষ কালিতে বই ছাপানো হবে।

রেনেসাঁস আমলে উত্তর ইউরোপীয় পণ্ডিতরা আলোপ্প থেকে আসা বইকে যে মরক্কো লেদারের পুট খোলা বিশেষ বাঁধাইয়ে আবদ্ধ করতেন, সেটি প্রয়োগ করে বইটি বাঁধাই করবেন ইতালির এক পরিবার, যারা ৬০০ বছর ধরে বই বাঁধাইয়ের পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন।

এর আগে এবাদুর রহমানের প্রধান উপন্যাস দাস ক্যাপিটাল প্রকাশিত হয়েছিল ২০০৫ সালে এবং ২০১১ সালে বেরিয়েছিল দ্বিতীয় উপন্যাস গুলমোহর রিপাবলিক।

তার চিত্রনাট্য অবলম্বনে কিছুদিন আগে বাংলাদেশে মুক্তি পেয়েছে চলচ্চিত্র আলফা। এছাড়া তিনি শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন গেরিলা চলচ্চিত্রের জন্য।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.