সৈয়দা ইয়াসমীন, সম্পাদনা ডেস্ক:
ইতালিতে আসন্ন বড়দিন (ক্রিস্টমাস), নববর্ষ এবং এপিফানিয়া উদযাপনের প্রাক্কালে সারাদেশকে লাল এবং কমলা জোনে পরিণত করার সিদ্ধান্ত এলো এবার।আগের সিদ্ধান্তে এসেছে কিছু পরিবর্তন। এবার আর Dpcm নয়, নতুন ডিক্রি প্রকাশ করেছেন জুসেপ্পে কন্তে। উৎসব উদযাপনের সময়গুলোতে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এবং করোনা মহামারীর তৃতীয় ঢেউ এড়াতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

যেসব নিষেধাজ্ঞা থাকছে নতুন ডিক্রিতে:

২৪ থেকে ২৭ ডিসেম্বর, ৩১ ডিসেম্বর থেকে ৩ জানুয়ারি এবং ৫ ও ৬ জানুয়ারীতে সারা দেশ লাল জোনে চিহ্নিত করা হবে।

এই দিনগুলিতে বার, রেস্তোরা, দোকান বন্ধ থাকবে কিন্তু খাবার বহন করে নেওয়া যাবে, অথবা বাসায় অর্ডার করা যাবে রাত দশটা পর্যন্ত।

নিজের পৌরসভার ভেতরেও বিশেষ কোনো প্রয়োজন ছাড়া এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যাওয়া যাবেনা। তবে চিকিৎসা, কর্মক্ষেত্র এবং বিশেষ প্রয়োজনে যাওয়া যাবে। এক্ষেত্রে অটো সার্টিফিকেট সাথে নিয়ে যেতে হবে।

এ দিনগুলোতে সকাল পাঁচটা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধু বান্ধবের বাসায় যাওয়া যাবে কিন্তু দুই জনের বেশি যাওয়া যাবেনা না। পরিবারে যদি ১৪ বছরের নিচে শিশু সন্তান থাকে ও প্রতিবন্ধী কিংবা একা চলতে অক্ষম লোক থাকে, তবে তাদেরকে সাথে নেয়া যাবে। এবং প্রতিদিন শুধুমাত্র একজনের বাসায় যাওয়া যাবে। একের অধিক বাসায় যাওয়া যাবে না।

২৮,২৯,৩০ ও ৪ জানুয়ারিতে সারা ইতালি কমলা জোনে থাকবে।

এই দিনগুলোতে নিজের অঞ্চল থেকে অন‍্য অঞ্চলে যাওয়া যাবেনা। তবে কর্মক্ষেত্র, চিকিৎসা কিংবা বিশেষ প্রয়োজনে অটো সার্টিফিকেট সাথে নিয়ে যেতে হবে।

দোকান খোলা থাকবে। বার, রেস্তোরা বন্ধ থাকবে। এক অঞ্চল থেকে অন্য অঞ্চলে যাওয়া যাবে, যদি ঐ অঞ্চলের জনসংখ‍্যা পাঁচ হাজারের কম হয় এবং গন্তব‍্যস্থল ৩০ কিলোমিটার দূরত্বের মধ‍্যে হয়।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.