আর্লি স্টার ডেস্ক:
সারা বিশ্ব যখন করোনার সাথে যুদ্ধ করে চলেছে,ঠিক তখনই ফরাসী প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রো লিপ্ত আছেন মুসলিম বিদ্বেসী মতামত প্রকাশে। বর্তমানে করোনার মতোই আলোচনা, সমালোচনার অন‍্যতম বিষয়বস্তু হচ্ছেন এই ম‍্যাক্রো।

ফ্রান্সে নবীর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের কারণে ম‍্যাক্রোর প্রতি নিন্দা জানিয়েছেন অনেক মুসলিম নেতা কর্মীরা এবং মুসলিম দেশগুলোতে ফরাসী পণ‍্য বন্ধেরও দাবী জানানো হচ্ছে। এ ব‍্যাপারে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান ম্যাক্রোর মানসিক স্বাস্থ্য নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। তার পরিপ্রেক্ষিতে ম‍্যাক্রো মুসলিম ও ইসলাম ধর্ম বিষয়ে খোলামেলা সমালোচনায় লিপ্ত রয়েছেন।

ফরাসী প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রো আল জাজিরা টেলিভিশনে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, মুসলিমদের নবীকে নিয়ে আঁকা বিতর্কিত ব্যঙ্গচিত্রের কারণে মুসলিমরা কেন এতটা ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন তা তিনি বুঝতে পারেন। তাই বলে তিনি সহিংসতা মেনে নিতে পারবেন না।

তিনি আরও বলেন, মুসলিম বিশ্বে তার প্রতি যে তীব্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে, তার কারণ হচ্ছে সবাই ভেবেছেন তিনি নবীর ব্যঙ্গচিত্রকে সমর্থন করেছেন অথবা ফরাসী সরকারই বুঝি এটি তৈরি করেছে।

যারা নবীর ব্যঙ্গচিত্র একেঁছেন তাদের বাকস্বাধীনতার প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, “যে ধরণের অনুভূতি প্রকাশ করা হচ্ছে তিনি সেটা বুঝতে পারেন এবং তাদেরকে শ্রদ্ধা করেন। কিন্তু তাঁর ভূমিকাটিও বুঝতে হবে।

ম্যাক্রো বলেন, আজকের বিশ্বে কিছু মানুষ আছে যারা ইসলামকে বিকৃত করে এবং ধর্মরক্ষার নামে মানুষ হত্যা করে, জবাই করে – ইসলামের নামে কিছু চরমপন্থী আন্দোলন এবং ব্যক্তি সহিংসতার চর্চা করে।”

ম্যাক্রো আরও বলেন, ব্যঙ্গচিত্র নিয়ে ক্ষোভের কারণে এখন ফরাসী পণ্য বর্জনের যে প্রস্তাব করা হয়েছে সেটা অর্থহীন এবং অগ্রহণযোগ্য।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.