কভিড-১৯ ভ‍্যকসিন

প্রায় ১বছর আগে কোভিড-১৯ বা করোনা ভাইরাসকে মহামারী হিসেবে ঘোষনা দেয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এই মহামারী মোকাবেলায় নেওয়া হয় কোভাক্স উদ্যোগ। কোভ্যাক্স উদ্যোগ ঘোষণার প্রায় ৮মাস পর ১ম দেশ হিসেবে ভ্যাকসিন গ্রহণ করে আফ্রিকান দেশ “ঘানা”।

আন্তর্জাতিক II শাহারিয়ার রহমান, বিশেষ প্রতিনিধি:

আজ বুধবার অ্যাস্ট্রাজেনকো, অক্সফোর্ড ও ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট থেকে উৎপাদিত করোনার ভ্যাকসিন ঘানায় পৌঁছে।


বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও ইউনিসেফের যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, ৬লাখ ভ্যাকসিন নিয়ে একটি ফ্লাইট রাজধানী আক্রায় অবতরণ করে।

কোভ্যাক্স বা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনস গ্লোবাল অ্যাকসেস ফ্যাসিলিটি উদ্যোগের নেতৃত্বে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ছাড়াও রয়েছে গ্যাভি, সিইপিআই (সংক্রামক রোগের টিকা তৈরির আন্তর্জাতিক সহযোগিতা মূলক সংস্থা)। এ উদ্যোগের লক্ষ হচ্ছে সারা বিশ্বে করোনার টিকার ন্যায্য বন্টন নিশ্চিত করা।

আগামী সপ্তাহে ঘানাতে করোনার টিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে বলে আশা করা যায়। সেইসাথে স্বাস্থ্যকর্মীরা, যাদের বয়স ৬০ বছরের বেশি, অন্তর্নিহিত স্বাস্থ্য অবস্থার মানুষ এবং উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।


একটি যৌথ বিবৃতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং জাতিসংঘের শিশু তহবিল (ইউনিসেফ) বলেছে যে, এটি একটি স্মরণীয় অনুষ্ঠান এবং এই মহামারীর অবসান ঘটাতে সমালোচিত।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.