বর্তমান সময়ে মরণঘাতী এক মহামারীর নাম হচ্ছে করোনা বা কোভিড-১৯। এতে আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিন সারা বিশ্বে অসংখ্য মানুষ মারা যাচ্ছে। কেবল করোনা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত ব্যক্তি নন, এতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেছেন এমন ব্যক্তির শরীর থেকেও এ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এশিয়া II শাহরিয়া রহমান, প্রদায়ক:

সংখ্যালঘু মুসলিম ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের লোকদের মধ্যে যারা কোভিড-১৯ দ্বারা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন তাদের কবর দেওয়ার জন্য একটি প্রত্যন্ত দ্বীপ বেছে নিয়েছে শ্রীলঙ্কা সরকার।

সরকার এর আগে সংখ্যাগরিষ্ঠ বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের সাথে সামঞ্জস্য রেখে সংখ্যালঘুদের তাদের মৃতদেহকে দাফন করতে বাধ্য করেছিল। কারণ তারা এটি দাবি করে যে সমাধিগুলি ভূগর্ভস্থ জলকে দূষিত করবে।

কিন্তু গত সপ্তাহে সংখ্যালঘু গোষ্ঠীগুলির তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে সরকার এ সিদ্ধান্ত থেকে পিছিয়ে পড়ে।

মাননার উপসাগরের ইরানাথিবু দ্বীপটি দাফনের জন্য নির্ধারিত করা হয়েছে।এটি রাজধানী কলম্বো থেকে প্রায় ৩০০কিলোমিটার (১৮৬মাইল) দূরে অবস্থিত। খুব কম জনবহুল হওয়াতে এ স্থানকেই দাফনের জন্য নির্ধারিত করে শ্রীলঙ্কা সরকার।

মুসলমানরা সরকারের এই নিষেধাজ্ঞায় ক্ষুব্ধ হয় এবং বলে যে, এর কোনও বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। জনসংখ্যার প্রায় ১০% মুসলমান।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং জাতিসংঘ সহ আরও অন্যান্য মানবাধিকার সংগঠনগুলিও এ সিদ্ধান্তে আপত্তি জানায়।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.