তুমি কেমন করে ভেঙে দাও অনায়াসে চন্দ্রালোকিত সাজানো সংসার,
দীর্ঘ সহবাসের প্রেম প্রপাত, হৃদ্যিক স্বাস্থ্য।
শব্দের কারুকাজে যে কবিতা ছিলো বাঙময় ক্যানভাস সংক্ষিপ্ততার কারণে তাকে ফেলে দিলে অরণ্যে, পাহাড়ে, বেলাভূমিতে,
একা একাই ছুঁড়ে ফেললে ভাঙনের অশ্লীল বিলাসিতায়।
গড়তেই যখন জানোনা, তখন সবকিছু ভেঙে ফেলার আয়েসি আয়োজনে কেন শামিল হতে গেলে?
আমার সাজানো বাগান তছনছ করে দিলে, ঘর ভাঙলে,
পাহাড়, গাছ, সাগরের উর্মিমালা সবকিছু ভেঙে ফেললে কত সহজেই!
হাসতে হাসতে ভেঙে গুড়িয়ে দিলে নীল নীল বৈকালিক স্মৃতির ফোয়ারা!
ভাবছি তোমার ঘোলাজলের নদীতে নামবো একদিন
ডুব সাঁতারে খুঁজবো তলানিতে প্রথম প্রণয়ের ক্ষণ,
এমনওতো হতে পারে ভাঙতে ভাঙতে ভুল করে ওটা ফেলে গেছো অচেনা জলের প্রান্তরে।

Spread the love

১ Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.