কবিতা

দূরত্বের মাঝে থাকবে কুয়াশার সাঁকো

আমাদের সমস্ত আদর মাখানো চারাগাছ
শব্দে লাগিয়েছিলেন যত্নে
আলো ধার করে এনেছি চাঁদের থেকে
মাখিয়েছি তোমার সারা শরীরে
আমাদের দূরত্বের মাঝে থাকবে কুয়াশার সাঁকো
এমনি কথা ছিল
আমাদের অজান্তেই হয়তো আমাদের নাম দুটি
একে অন্যের সাথে জোড়া লেগে যেত।।

তোমাকে ঢাকি আমার আরামে

তীব্র এ সংকেত জ্বলে ওঠে গোধূলি মিনারে
কত ক্লান্তিমাখা মেঘ নিয়ে যেতে চায়
তোমার আরামটুকু
মৃত গাছপালারা মিশে যায় তোমার ঘুমের ভেতর
যতটুকু রাত বাকি ছিল তোমার চোখে
তাই দিয়েই তোমাকে ঢেকেছি
গোধূলির গুঁড়ো কেড়ে নিতে পারে তোমার ঘুম
তোমাকে ঢাকি আমার আরামে নিবিড় নিঝুম।।

ফুটে ওঠে চারিদিকে তোমার মুখ

তোমার শরীরে দাঁত বসানোর পর
আমার জিভ আনন্দে লাফাতে লাফাতে স্হির হয়ে যায়, অভিভূত দুই চোখ
রোদ মাখে জানলায়,
তোমার বাঁশির মূর্ছনামাখা আমি
আঙুলের সাথে আঙুল ঘসা খায়
শব্দের নখেরা চঞ্চল হয়ে ওঠে
তোমার চোখের দিকে থামি
ফুটে ওঠে চারিদিকে তোমার মুখ
আমি বিকেল দেখতে চেয়ে তোমার চোখে
অসুস্থ হয়ে গেলাম।।

নরম পালক গেঁথে যাচ্ছে

আজ তুমি অন্তর্বাসে ঢাকা শরীরের
সুন্দর গরম পোয়াচ্ছো অদ্ভুত শীতে
তলপেটের উষ্ণতার থেকে জাগছে শরীর
সেজে উঠছে গন্ধ জুঁই, করবীতে,
নরম পালক গেঁথে যাচ্ছে সুরের মূর্ছনায়
কত নক্ষত্র নুপুর পড়ে নেচে বেড়াচ্ছে
নগ্ন আকাশের সীমানায়।।

Spread the love

১ Comment

  1. সারাদিন চনমনে থাকতে ভালো কবিতার চাই খোঁজ,
    জয়ীতা তুমি লিখছো অসাধারণ,সমৃদ্ধ হই রোজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.