ইকবাল হোসেন তালুকদার, নবীগঞ্জ প্রতিনিধি:
নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ বাজারে রেদোয়ান টেলিকমের প্রোঃ আজিম উদ্দিনের ১০ লক্ষ টাকা ছিনতাই হওয়ায় পর পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান পরিচালনা করে ছিনতাইকারী আটকসহ ৮ লক্ষ টাকা উদ্ধার করেছে। অপর ২ লক্ষ টাকা উদ্ধারে আটককৃতদের জিজ্ঞাসা চলছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়,নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের লালাপুর গ্রামের মৃত সুনুকফর উল্লার পুত্র ইনাতগঞ্জ বাজারের রেদোয়ান টেলিকমের প্রোঃ আজিম উদ্দিন গত শুক্রবার রাত ১১টার সময় তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে মোটরসাইকেল যোগে বাড়ীতে রওনা দেন। এ সময় তার সাথে একটি ব্যাগে ১০ লক্ষ টাকা ছিল। তিনি দিঘীরপাড় গ্রামের ঈদগাহ নিকট এসে পৌছলে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা ছিনতাইকারী নুরুল আমীন পেছন থেকে লাথি মেরে আজিম উদ্দিনকে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে দিয়ে টাকার ব্যাগ নিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় ব্যাবসায়ী আজিম উদ্দিনের চিৎকারে দিঘীরপাড় গ্রামসহ আশপাশের লোকজন ঘটনা স্থলে জড়ো হন।খবর পেয়ে ইনাতগঞ্জ ফাঁড়ির পুলিশ পরিদর্শক শামসুদ্দিন খাঁন একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনা স্থলে আসেন।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে কিছু দুরে একটি মোটরসাইকেল পেয়ে এর সূত্র ধরে শনিবার (১২ ডিসেম্বর) বিকেলে ঘটনার সাথে জড়িত ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের মোস্তফাপুর গ্রামের মৃত মনফর উল্লার পুত্র নুরুল আমীন (২৫) কে আটক করেন।পুলিশের জিজ্ঞাসাবাধে নুরুল আমীন ছিনতাইয়ের কথা স্বীকার করে। সে জানায় টাকার ব্যাগ দিঘীরপাড় গ্রামের ইকরাম উল্লার পুত্র আক্তার মিয়ার কাছে সে রেখেছে।পরে পুলিশ আক্তারের বাড়ী থেকে ছিনতাই হওয়া টাকার ব্যাগ উদ্ধার করে। এসময় ব্যাগে ৮ লক্ষ টাকা পাওয়া যায়। টাকার মালিক আজিম উদ্দিনের দাবি ব্যাগের মধ্যে ১০ লক্ষ টাকা ছিল। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত নুরুল আমিন ও আক্তারকে আটক করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দুজনকে নবীগঞ্জ থানায় জিজ্ঞাসাবাধ চলছে।

ইনাতগঞ্জ ফাঁড়ির ইনচার্জ শামসুদ্দিন খাঁন সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ছিনতাই হওয়া টাকা উদ্ধারসহ ঘটনার সাথে জড়িত নুরুল আমীন ও আক্তারকে আটক করছি। থানায় জিজ্ঞাসাবাধ শেষে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.