শ্রীপুর, গাজীপুর, বাংলাদেশ প্রতিনিধিঃ ঘনিয়ে এসেছে পৌরসভা নির্বাচন। এ নির্বাচনকে সামনে রেখে পিছিয়ে নেই গাজীপুর জেলার শ্রীপুর পৌরসভাবাসীও। ঠান্ডা আবহাওয়ায় একদিকে যেমন জানান দিচ্ছে শীতের আগমনী বার্তা অন্যদিকে পৌরবাসী পাচ্ছেন নির্বাচনের আগমনী বার্তা। তবে আবহাওয়া ঠান্ডা হলেও গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে স্থানীয় পরিবেশ এখন বেস উৎসব মুখর ।

গত ২২ নভেম্বর, রোববার সন্ধ্যায় আগারগাঁয়ের নির্বাচন ভবনে পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। নির্বাচন কমিশনের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর পৌর নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা করেন। তিনি জানান, প্রথম ধাপে যেসব পৌরসভায় ভোট হবে সেগুলোতে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ১ ডিসেম্বর, বাছাই ৩ ডিসেম্বর, মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষদিন ১০ ডিসেম্বর এবং সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হবে ২৮ ডিসেম্বর।

এর পর থেকে পৌর এলাকার পাড়া, মহল্লা, হাট-বাজার, অফিসপাড়াসহ সর্বত্রই আলোচনা পৌর নির্বাচনকে ঘিরে। প্রার্থীরা দৌড়ঝাপ শুরু করেছেন অনেক আগে থেকেই। ভোটাররা আছেন অধীর আগ্রহে।

এ বিষয়ে কথা বলে পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা একজন নতুন ভোটার বলেন,

জেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্বদানকারী জাহিদুল আলম রবিন প্রভাবশালী পদে থাকলেও বিতর্কে উর্ধে থেকেছেন সবসময়। টাকা ও ক্ষমতা মানুষকে আদর্শচ্যুত করলেও জনকল্যাণের ব্রত নিয়ে পথ চলা বঙ্গবন্ধুর আদর্শিত এই সৈনিক ছিলেন সবসময় সতর্ক। তাই তাকে কখনোই স্পর্স করতে পারিনি কোন কলঙ্ক ! আমার একমাত্র পছন্দ তাই তরুন ছাত্রনেতা রবিন ভাই ই প্রার্থীদের মধ্যে সেরা ।

৪নং ওয়ার্ডেরর একজন প্রবীন ভোটারেরর সাথে কথা বলে জানা যায়, আওয়ামীলীগের সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম এ্যাড. রহমত আলীর সহযোগি (পিএস) এ্যাড. হারুন-অর-রশিদ ফরিদ বিজ্ঞ ও বিচক্ষণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হিসেবে পরিচিত । যিনি নিজ উদ্যোগে সরকার, দল এবং আশেপাশে মাদ্রাসা, মসজিদ, মন্দিরসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন অনেক । তার কাছে এমন প্রার্থীর অগ্রাধিকার সবার আগে ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ৮নং ওয়ার্ডের একজন ভোটার বলেন নির্বাচনের সন্ধিক্ষণে মাসুদ আলম ভাংগী মেয়র প্রার্থীতার খবর শুনে নড়েচড়ে বসেছে সর্বমহল। অনেকে আবার বর্তমান মেয়রের বিকল্প হিসেবেও দেখছেন ভাঙ্গীকে।

আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রফিকুল ইসলাম মন্ডল (বুলবুল) রাত দিন পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।

বর্তমান শ্রীপুর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী সরকারি কলেজ সাবেক (শ্রীপুর ডিগ্রি কলেজের) এর সাবেক ভিপি আহসান উল্লাহ্ও কাজ করে যাচ্ছেন।

আবার অনেকে প্রার্থীদের মাঝে শ্রীপুর পৌরসভার বর্তমান মেয়রকেও অনেকেই এগিয়ে রাখছেন।

কারন হিসেবে বলছেন এই পাঁচ বছরের মেয়াদে যে কাজগুলো শেষ হয়নি তা পূর্নভাবে শেষ করতে পারবেন।

অন্যদিকে শ্রীপুর আওয়ামীলীগের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত হলেও তাদের অভ্যন্তরীন কোন্দলকে পুঁজি করে এখানে এবারের নির্বাচনে বিএনপি ঘুরে দাড়াতে চায় কৌশলে ! কোন ছাড় দিতে রাজি নয় সাবেক এ প্রধান বিরোধী দল। শ্রীপুর পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ শহীদকে একক প্রার্থী ঘোষনা করা হয়েছে।

সকল জল্পনাকল্পনার অবসান ঘটিয়ে কে হয় পৌর পিতা তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে ২৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

গাজীপুর, বাংলাদেশ। বা.স-০৯:০৫ পিএম/পি.কে.সি

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.