আজ ২৭শে ডিসেম্বর, রোজ রবিবার – ইতালিতে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন দেয়া শুরু হয়েছে। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে সামনে থেকে লড়াই করে যাওয়া “করোনা যোদ্ধা” যারা নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এত দিন ধরে হাসপাতালে নিরন্তর মানুষের জীবন বাঁচানোর জন্য চেষ্টা করে গেছেন – সেই সব চিকিৎসক’দের কে প্রথমে ভ্যাকসিন দেয়া হচ্ছে।

ইতালি/ ইউরোপে, যেহেতু দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, অব্যবস্থাপনা, শ্রেণী বৈষম্য খুব একটা নেই, তাই খুব শীঘ্রই নিশ্চয়ই সাধারন মানুষসহ সবাই ভ্যাকসিন পাবেন। হয়তো এখানে “ফ্রি-ভ্যাকসিন” এর সুবিধা সবার জন্যেই থাকবে, অর্থাৎ বিনা মূল্যে সবাইকে ভ্যাকসিন দেয়া হতে পারে।

আমি নিজেও কিছুদিনের মধ্যে ভ্যাকসিন পাবো – এই অনুভূতি টা কেমন? সত্যি বলতে, শেষ পর্যন্ত ভ্যাকসিন এসেছে, তাই মহান আল্লাহ্‌ তায়ালার কাছে কৃতজ্ঞতা জানাই, কিন্তু, আমি খুব বেশি আনন্দিত, এটা বলতে পারছি না। সবার আগে বাংলাদেশের সবার কথা মনে পড়ছে। প্রিয় মানুষেরা সবাই বাংলাদেশে আছেন, অথচ, বাংলাদেশে কবে থেকে ভ্যাকসিন দেয়া শুরু হবে সেটা আমরা কেউ জানি না – সব কিছু এখনো অনিশ্চিত।

মনটা পড়ে আছে প্রিয় জন্মভুমি বাংলাদেশে, মা-ভাই-বোন, আত্নীয় স্বজন, বন্ধু-বান্ধব এবং ১৬ কোটি মানুষের জন্য মনটা কেন জানি অনেক বেশি বিচলিত। বাংলাদেশে যেদিন থেকে টিকা দেয়া শুরু হবে, কোন রকম বৈষম্য ছাড়াই দেশের প্রতিটি মানুষ ভ্যাকসিন পাবেন –
শুধুমাত্র সেদিন-ই হয়তো আমি নিজেও ভ্যাকসিন নেয়ার আনন্দ অনুভব করতে পারবো।

মহান সৃষ্টিকর্তার নিকট প্রার্থনা করি, যত দ্রুত সম্ভব বাংলাদেশ সরকার যেন করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রদান শুরু করতে পারে। দোয়া করি সরকার যেন, দক্ষতার সাথে দেশের প্রতিটি মানুষকে সুষ্ঠুভাবে ভ্যাকসিন প্রদান সম্পন্ন করতে পারে। আসুন আমরা সবাই এই দোয়া-ই করি, পাশাপাশি সবাই নিজেরা সচেতন থাকি, অন্যকেও সচেতন হতে সাহায্য করি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.