মালদ্বীপ এ অবৈধ বাংলাদেশি শ্রমিকদের বৈধকরণ, দেশে ফেরানো, নতুন কর্মী পাঠানো এবং দুই দেশের ফরেন সার্ভিসের উন্নয়নে দু’টি চুক্তি সই হয়েছে।

এশিয়া II আর্লি-স্টার ডেস্ক:


মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল্লা শহিদ ঢাকা সফরে আসলে মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে বাংলাদেশের প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় ও ফরেন সার্ভিস একাডেমির সাথে এই চুক্তি সই হয়।

বাংলাদেশ থেকে মালদ্বীপে মানবসম্পদ পাঠানো এবং বাংলাদেশ ও মালদ্বীপের কূটনীতিকদের প্রশিক্ষণের জন‍্য সহযোগিতা বিষয়ক দু’টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর সংক্রান্ত বিস্তারিত আলোচনা হয় বৈঠকে।

উক্ত বৈঠক শেষে অতিথি ভবনের সবুজ লনে যৌথ সংবাদ সম্মেলন করেন দুই বন্ধু দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এ সময় ড. মোমেন, মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে অনেক বিষয় নিয়ে আলোচনা করে একমত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন সাংবাদিকদের।

করোনাভাইরাসের টিকাদান কর্মসূচীর জন‍্য মালদ্বীপ, বাংলাদেশ থেকে কিছু নার্স নেওয়ার ইচ্ছা ব‍্যক্ত করেছে এবং ইতোমধ্যে অনেক চিকিৎসক সেখানে কাজ শুরু করেছেন বলে জানান তিনি।

মালদ্বীপ সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, একটি সুখবর হলো, দেশটির প্রেসিডেন্ট ঘোষণা দিয়েছেন যে, মালদ্বীপে কাজ করা তাদের দেশের সকল শ্রমিক, প্রবাসীসহ সবাইকে বিনামূল্যে কোভিড-১৯ টিকা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে দেশটির সরকার।

এরপর পর্যটন, যোগাযোগ, জলবায়ু, ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণ, ও রোহিঙ্গা ইস্যুসহ আঞ্চলিক এবং আন্তর্জাতিক বিষয়ে আলোচনা হয়েছে মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে আলাপ হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এছাড়াও মৎস্যসম্পদ উন্নয়ন ও গভীর সমুদ্রে মৎস্য শিকার, দ্বৈত কর প্রত্যাহার, জয়েন্ট কমিশন অন টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকোনমিক কো-অপারেশন, বন্দি বিনিময় চুক্তিসহ কিছু সমঝোতা স্মারক চূড়ান্তকরণ এবং বিভিন্ন দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে সহযোগিতার ক্ষেত্র নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে আলোচনা হয়েছে।

উল্লেখ‍্য, প্রতিবেশী দেশ মালদ্বীপে প্রায় এক লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছেন। যারা নির্মাণ, পর্যটন, বিপণন, যোগাযোগ, স্বাস্থ্যখাতসহ প্রায় সব ক্ষেত্রেই কাজ করে যাচ্ছেন। মালদ্বীপে কর্মরত মোট প্রবাসী কর্মীর ৭০ শতাংশই হচ্ছেন বাংলাদেশী।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.