উদারনৈতিক বলে খ্যাত গিনসবার্গের মৃত্যু মার্কিন নির্বাচনে নতুন এক সংকটের জন্ম দিয়েছে। আগামী ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এরই মধ্যে আগাম ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের সদ্যপ্রয়াত বিচারক রুথ ব্যাডার গিনসবার্গের সম্ভাব্য উত্তরসূরি হিসেবে উঠে এসেছে অ্যামি কোনি ব্যারেটের নাম।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এরই মধ্যে জানিয়েছেন, ওই পদে একজন নারীকে নিয়োগের কথাই ভাবছেন তিনি। রুথ বেইডার গিনসবার্গের মৃত্যুর পর এক টুইটে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, তিনি খুব দ্রুতই এই শূন্য পদে নিয়োগ দেবেন। যাকে নিয়ে এতো আলোচনা, সেই অ্যামি কোনি ব্যারেট আসলে কে?

ব্রিটিশ সংবাদপত্র দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের কোর্ট অব আপিলের সেভেন্থ সার্কিটের বিচারক অ্যামি কোনি ব্যারেট সুপ্রিম কোর্টে কাজ করেছেন। অধ্যাপনা করেছেন নটর ডেম ল’ স্কুলে।

রক্ষণশীল বিচারক অ্যান্টোনিন স্ক্যালিয়ার সঙ্গে দীর্ঘদিন কাজ করেছিলেন ব্যারেট। ২০১৬ সালে মারা যাওয়া স্ক্যালিয়া ব্যারেটকে নিয়ে খুব উচ্চ ধারণা পোষণ করতেন।ব্যারেটকে নিজেদের লোক মনে করেন রক্ষণশীলেরা। ধর্মপ্রাণ ক্যাথলিক হিসেবে তাঁর খ্যাতি রয়েছে।

৪৮ বছর বয়সী সাত সন্তানের মা ব্যারেটকে নিয়ে এরই মধ্যে শঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে ডেমোক্রেটিক দলের মধ্যে। অনেকেই আশঙ্কা করছেন, সুপ্রিম কোর্টের বিচারক হিসেবে অ্যামি কোনি ব্যারেট নিয়োগ পেলে তিনি গর্ভপাতের ব্যক্তি অধিকার সম্পর্কিত আদালতের নির্দেশনাটি বদলে দেবেন। ব্যক্তিগতভাবে তিনি গর্ভপাতের ঘোর বিরোধী হিসেবে পরিচিত।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.