সবুজ চাদরে মোড়ানো মানচিত্রে
অবিশ্রান্ত পথ চলতে চলতে আমি
খুঁজে নিই নিজের পথ ; গন্তব্য
ঠিক করে ঠিক করে নিই দিক
শিয়রে বিছানো কালো চাদরের
সুবিন্যস্ত ভাঁজ দেখে শিহরিত হই
পরম ভালোবাসায় নরম হাতে ছুঁয়ে দিই
মসৃণ চাদরের খোপাখোলা ভাঁজ!
কমলার কোষের সুমিষ্ট স্বাদ লেগে থাকে
আমার অবাধ্য ঠোঁটের অস্তিত্বে আর
আমি কোমল বৃক্ষের সাথে লেগে থাকা
পেঁপের বোটা নিয়ে মেতে উঠি অনায়াসে।

উদ্দাম সৈকতের সুকোমল প্রান্তরে
দীর্ঘ সময় বিচরণ করতে করতে
ছুটতে থাকি মেরিন ড্রাইভে।
দৃষ্টি আমাকে নিয়ে চলে দ্রুত
লোনা দরিয়ার পাশ ঘেঁষে সারি সারি
ঝাউবনের নিচে বসে থাকা পান পাতায়।
আলাওলের তাম্বুল রাতুল অধরের মতো
রক্তাক্ত না করলেও আমি
চুষে নিই পান পাতার যাবতীয় সার।

স্বগোত্রীয় স্বভাবজাত উত্তেজনায়
আমি মোমের মতো গরম হই,
পরম শ্রান্তি আর চরম শান্তিতে
আবার মোমের মতো গলে যাই।

মুহাম্মদ ইয়াকুব
কবি, ঔপন্যাসিক ও কলামিস্ট

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.