ইতালির রোম এ কারাবিনিয়েরির হাতে গ্রেফতারকৃত এক আসামী (ভুয়া চিকিৎসক)র স্বীকারোক্তিতে বেরিয়ে আসছে লোক ঠকানোর অকল্পনীয় কিছু বিষয়!

ইতালি II সৈয়দা হাসিনা দিলরুবা, সম্পাদনা ডেস্ক:

লোকটি রোমের বিভিন্ন স্বনামধন‍্য হাসপাতালগুলোতে গিয়ে, বয়স্ক রোগীদের কাছে নিজেকে ডাক্তার পরিচয়ে, এমনকি হাসপাতালের প্রধান পরিচয় দিতো, তাদের বিশ্বাস অর্জন করতো। এরপর মিথ‍্যা গল্প করে, তাদের কাছ থেকে বিরাট অঙ্কের টাকা আত্মসাৎ করতো।

গল্পটা ছিল এমন, তাঁর সাত বছরের ছোট মেয়ে মারাত্মক সড়ক দুর্ঘটনায় আক্রান্ত হয়েছিল (যা আদৌ ঘটেনি)। একারণে তাঁর মেয়ের ভ্যান্টিকাল থেরাপির জন্য প্রচুর অর্থ ব‍্যয় করতে হয়েছে এবং আরো চিকিৎসা দরকার। সে সবকিছু ব‍্যয় করে নিঃস্ব হয়ে গেছে।

তাঁর এমন হৃদয় নিংড়ানো গল্প শুনে, অনেকেরই মন ভারাক্রান্ত হয়ে যেত। এই সুযোগে সে হাতিয়ে নিতো বিরাট অঙ্কের টাকা। এমন কৌশলেই সে একের পর এক বয়স্ক রোগীদের ঠকিয়ে, তাদের কাছ থেকে প্রচুর টাকা-পয়সা আয়ত্বে নিয়েছে।

রোম সান জিওভান্নি স্টেশনের কারাবিনিয়েরি (বিশেষ আইন সুরক্ষাকারী বাহিনী) অন্য এক কারণে তাকে গ্রেপ্তার করার পর, এসব তথ‍্য বেরিয়ে আসে।

৫৯ বছর বয়সের এই লোকটির ২০১৯ সালের মার্চ থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত কমপক্ষে ৭টি কেলেঙ্কারী সম্পর্কিত অগণিত তথ‍্য নথিভুক্ত করতে সক্ষম হয়েছে কারাবিনিয়েরি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.