মোহাম্মদ আদনান মামুন, বার্তা সম্পাদক-
গাজীপুরের শ্রীপুরে গৃহবধূ অপহরণ ও গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী মো. সোহাগ মিয়া(৩৫)কে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুর দেড়টায় গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর থানার মনিপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় ।

গ্রেপ্তার মো.সোহাগ মিয়া (৩৫) ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার ভরাডোবা এলাকার মো. আলাল মিয়ার ছেলে।সে জয়দেবপুর থানার মনিপুর বিকে. বাড়ী এলাকার জৈনেক মকবুল হাসান এর বাড়ীর ভাড়াটিয়া।

গাজীপুর পোড়াবাড়ি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লেঃ কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, গত বছরের ৫ সেপ্টেম্বর রাত নয়টার দিকে ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানার ভরাডোবা এলাকা হতে গৃহবধু ভিকটিম (২৩) কে অপহরণ করে প্রাইভেটকার যোগে গাজীপুরের শ্রীপুর থানার এমসি বাজার এলাকায় নিয়ে এসে একটি রুমের ভিতর আটকে রাখে। পরবর্তীতে ভিকটিমকে জীবন নাশের হুমকি দিয়ে কোকাকোলার সাথে নেশা জাতীয় দ্রব্য সেবন করিয়ে অজ্ঞান করে তিন বন্ধু সারা রাত পালাক্রমে গণধর্ষণ করে এবং তার ভিডিও ধারন করে। পরে অপহরণ ও গণধর্ষণের মূলহোতা সোহাগ উক্ত পর্ণোগ্রাফী ভিডিও অর্থের বিনিময়ে বিভিন্ন সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়।এরই প্রেক্ষিতে গত ৩ ডিসেম্বর ভিকটিম বাদী হয়ে গাজীপুরের শ্রীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। থানায় মামলা দায়ের করার পর র‌্যাব-১, গ

াজীপুর ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার লেঃ কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন উক্ত গণধর্ষণকারীদের গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে উক্ত মামলা ছায়া তদন্ত শুরু করেন।এরই ধারাবাহিকতায় গাজীপুরের একটি আভিযানিক দল অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে। এসময় তার নিকট হতে উক্ত ধর্ষণের ভাইরালকৃত পর্ণোগ্রাফী ভিডিও সহ একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। তিনি আরো জানান, জিজ্ঞাসাবাদে সে ঘটনার বিষয়ে সত্যতা স্বীকার করে এবং নিজেদের মুখে তার বর্ণনা দেয়। সে পূর্বেও অনেক মেয়েকে ধর্ষণ করেছে বলে স্বীকার করে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.