নিজস্ব প্রতিবেদক-
গাজীপুরের শ্রীপুরে স্কুল ছাত্রী অপহরণের দুই ঘন্টা পর উদ্ধার করেছে শ্রীপুর থানা পুলিশ। এ সময় অপহরণকারী রাজীব শেখ কে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। উদ্ধারকৃত স্কুলছাত্রী যশোর জেলার কোতোয়ালি সদর থানার বসুন্দিয়া গ্রামের মৃত জুলকার বিশ্বাসের মেয়ে। তার বাবা উপজেলার জৈনা বাজারের আবদার এলাকার আফাজ মোক্তারের বাড়ির ভাড়াটিয়া। এ ঘটনায় ছাত্রীর মাতা মিতু ইয়াসমিন বাদী হয়ে ৪জনকে অভিযুক্ত করে গত শুক্রবার রাতে শ্রীপুর থানায় অপহরণের মামলা দায়ের করেছে। অভিযুক্তরা হলেন একই এলাকার রাজিব শেখ (২৩), মোঃ আলী (৫০),রুবেল মিয়া (৩২) ও নাজমুল (২০)।

মামলা সূত্রে ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার জৈনাবাজার আবদার এলাকার আফাজ মোক্তারের বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় জৈনা বাজারের এইচ.কে একাডেমি ১০ম শ্রেণিতে পড়াশোনা করতো। এরই মধ্যে স্থানীয় রবি শেখের ছেলে রাজীব শেখ ওই ছাত্রীকে রাস্তা-ঘাটে বিভিন্ন সময় প্রেমের প্রস্তাব দিতো। এক সময় তাদের দুজনের মধ্যে প্রেমের সর্ম্পূক গড়ে ওঠে। ওই ছাত্রীর পরিবারকে একাধিকবার বিয়ের প্রস্তাব দেয়। কিন্তু মেয়ে বিয়ের বয়স না হওয়ায় বিয়েতে অমত প্রকাশ করে তার বাবা-মা। পরে রাজীব শেখ শনিবার (২৩ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে অজ্ঞাত-নামা কয়েকজন লোক নিয়ে জোড়পূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে ওইদিন স্কুল ছাত্রীর বড় ভাই ৯৯৯ ফোন করে প্রশাসনের সহযোগিতা চাইলে শ্রীপুর থানার উপ-পরির্দশক (এসআই) নয়ন ভূইয়া ২ ঘন্টা পর অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার ও অপহরণকারী দলের প্রধান অভিযুক্ত রাজীবকে তার বাড়ি থেকে আটক করে ।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, অপহরণের ঘটনায় মামলা হয়েছে এবং প্রধান অপহরণকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে অন্যান্য আসামিদের গ্রেপ্তারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.