মোহাম্মদ আদনান মামুন, নিজস্ব প্রতিবেদক-
গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভার কর আদায়কারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন মেয়র মো. আনিছুর রহমান। পৌরসভার কর আদায়কারী শফিউল আলমের বিরুদ্ধে প্রায় ১ কোটি ৬ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে রবিবার রাতে এ মামলা দায়ের করা হয়। মামলার বাদী মেয়র মো. আনিছুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন।
মেয়র আনিছুর রহমান জানান, ২০১৭ সালের ৮ জুন গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভায় কর আদায়কারী হিসেবে যোগদান করেন শফিউল আলম। তিনি ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার ভাটগাঁও গ্রামের হাফিজুর রহমানের ছেলে। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি র‌্যাব-১৪ এর সদস্যরা তাকে গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে শেরপুর জেলার শ্রীবর্দী থানায় একটি মামলা (নং ১১ তারিখ: ১৩/০২/২০২১) রয়েছে।
ওই মামলায় গ্রেফতারের পর তাকে শ্রীবর্দী থানায় হস্তান্তর করা হয়। সেখান থেকে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়। গ্রেফতারের পর থেকে শফিউল আলমকে শ্রীপুর পৌরসভার কর আদায়কারী পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।
মেয়র আরো জানান, কর আদায়কারী শফিউল আলমের অর্থ আদায় সংক্রান্ত কর্মকান্ড যাচাইয়ের জন্য চার সদস্যের কমিটি গঠণ করা হয়। শ্রীপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও ৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আমজাদ হোসেনকে ওই কমিটির আহবায়ক করা হয়। গত ৩০ মে ওই কমিটি পৌর কর্তৃপক্ষের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন। কমিটি তদন্তকালে শফিউল আলমের বিরুদ্ধে যোগদানের পর থেকে ৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শ্রীপুর পৌরসভার প্রায় ১ কোটি ৬ লাখ টাকা আত্মসাতের প্রমাণ পান। শ্রীপুর পৌরসভার কর বাবদ ওই টাকা আদায় করে পৌরসভার ব্যাংক হিসাবে জমা না করে কর আদায়কারী শফিউল আলম তার ব্যাক্তিগত জিম্মায় রাখার অভিযোগ করা হয়। এদিকে, তিনি আদালত থেকে জামিনে মুক্ত রয়েছেন।
শ্রীপুর থানার ওসি খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, রবিবার রাতে শ্রীপুর পৌরসভার কর আদায়কারী শফিউল আলমের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাত ও প্রতারণার অভিযোগে মেয়র আনিছুর রহমান বাদী হয়ে মামলাটি করেন। অভিযুক্ত শফিউল আলম পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.