বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের রাষ্ট্রীয় পদক বাতিলের সিদ্ধান্তে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান কর্ণেল অলি আহমেদ বলেছেন “আশা করি সরকার ভুলেও আগুনে হাত দেবে না।’

বাংলাদেশ II আলামিন সিকদার ইরাজ, বার্তা কক্ষ:

গত বুধবার মহাখালীর বাসায় ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ জিয়াউর রহমানের ঘোষণার কথা উল্লেখসহ সাংবাদিকদের কাছে অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল অলি আহমেদ বীর বিক্রম এসব কথা বলেন।

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের রাষ্ট্রীয় পদক বাতিলের সিদ্ধান্ত থেকে সরকার সরে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডি পি) একাংশের চেয়ারম্যান ও কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীর বিক্রম।

তিনি বলেন, ‘আশা করি, সরকার ভুলেও আগুনে হাত দেবে না।’ অলি আহমদ প্রশ্ন তোলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর পর সরকার হঠাৎ এ ধরনের দুঃস্বপ্ন কেন দেখছে সরকার?

তিনি আরও বলেন” যদি কোনো কারণে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিল হয়, ভবিষ্যতে সরকার পরিবর্তনের পর অনন্য অবদানের জন্য তাঁকে মরণোত্তর ‘বীরশ্রেষ্ঠ’ উপাধিতে ভূষিত করা হবে।”

উল্লেখ্য, জাতিয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল গত মঙ্গলবার এক সভায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর হত্যাকারীদের সহায়তা করার জন্য সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের রাষ্ট্রীয় পদক বাতিলের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.