আন্তর্জাতিক মহলের কুটচাল ও জাতিগত দ্বন্দ্বে জর্জরিত হয়ে এখন ধ্বংসের মুখে সিরিয়া। বিগত ১০ বছর যাবত চলছে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ। ইয়েমেন, আফগানিস্তান,ইরাক, লিবিয়ার সাথে একই পথে হেঁটে দিনের পর দিন রক্ত ঝরাচ্ছে সিরিয়া।

এশিয়া II শাহরিয়া রহমান, প্রদায়ক;

জাতিসংঘের তদন্তকারীদের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সিরিয়ায় বিগত ১০ বছরের গৃহযুদ্ধের সময় নির্বিচারে আটক হওয়ার পর কয়েক হাজার বেসামরিক নাগরিক এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।

নতুন এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হাজার হাজার মানুষকে জেল হেফাজতে নিয়ে নির্যাতন বা হত্যা করা হয়েছে। ভুক্তভোগীদের ভাষ্যমতে, তাদের নির্যাতনের মাত্রা এতটাই বর্বর ছিল যে ১১বছরের কম বয়সী ছেলে মেয়েরাও ধর্ষণের শিকার হয়। এটি একটি অকল্পনীয় যন্ত্রনা।

২০১১ সালের মার্চ মাসে রাষ্ট্রপতি বাসার আল আসাদ সরকার বিরোধী গ্রাফিতির জন্য সরকারি বাহিনী ৪জনকে ধরে নিয়ে নির্যাতন করে। এর প্রতিবাদে দেশব্যাপী শুরু হয় বিক্ষোভ আন্দোলন।
মূলত এই ছোট একটি ঘটনার মাধ্যমেই গৃহযুদ্ধের সূচনা হয়।

এই যুদ্ধে কমপক্ষে ৩৮০,০০০ জন মানুষ মারা গেছে এবং প্রায় ৬ মিলিয়ন শরণার্থী সহ অর্ধেক জনগণ তাদের বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.