সৈয়দা ইয়াসমীন, সম্পাদনা ডেস্ক:
পালেরমোর বিজ্ঞান বিভাগের উচ্চ মাধ‍্যমিক বিদ্যালয় কান্নিজ্জারো কর্তৃপক্ষ ৬৯টি শ্রেণীকক্ষ স‍্যানিটাইজেশনের জন‍্য উন্নত রোবট সেবা গ্রহণ করেছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক সিসিলিয়ার মধ‍্যে সর্বোচ্চ প্রযুক্তিগত সুবিধা গ্রহণকারী একমাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে এই স্কুলটি।

প্রায় ১,৭০০ শিক্ষার্থীর স্বাস্হ‍্য সুরক্ষা দিতে, পাশাপাশি শিক্ষক ও প্রশাসনিক কর্মীদের স্বাস্থ্য রক্ষার্থে ‘কান্নিজ্জারো’র অধ‍্যক্ষ আন্না মারিয়া কাতালানো তার কর্মীদের সাথে নিয়ে ইনস্টিটিউটে রবোট পিএইচএস (প্রো হেলথ সিস্টেম)সেবা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেন।

পিউরিটি গ্রুপের দক্ষ ইঞ্জিনিয়ার এবং কম্পিউটার বিশেষজ্ঞদের দ্বারা তৈরি সম্পূর্ণ রিমোট সিস্টেমের এই রোবটটি পরিবেশকে যথেষ্ট পরিচ্ছন্ন এবং কোভিড-১৯সহ যে কোন ধরনের ভাইরাস থেকে সুরক্ষিত রাখতে সক্ষম। সময়োপযোগি এই রোবটটিকে অনেক দুরে থেকেও পরিচালনা করা সম্ভব।

কান্নিজ্জারোর অধ‍্যক্ষ কাতালানো বলেন, রোবটটি তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবহার করা হয়েছে। তিনটি শ্রেণীকক্ষ স্যানিটাইজ করা হয়েছে। “আজ আমরা আইসোলেশনে থাকা শিক্ষার্থীদের জন‍্য তিনটি খালি শ্রেণিকক্ষকে স্যানিটাইজ করার উদ্দেশ‍্যে কাজ শুরু করেছি। তিনি আরো বলেন, এতদিন আমাদের যে রাসায়নিক স্যানিটাইজেশন ব্যবহার করতে হয়েছিল, এই রোবটটি আমাদেরকে তা থেকেও মুক্ত রাখবে। আমরা পর্যায়ক্রমে স্যানিটাইজেশনের জন্য রোবটটি ব্যবহার করব।

অধ‍্যক্ষ কাতালানোর এই সময়োপযোগি পদক্ষেপ সন্তানের স্বাস্থ‍্য সুরক্ষা নিয়ে চিন্তিত অভিভাবকদের মনে কিছুটা আশার আলো জাগিয়েছে।

৬৯টি শ্রেণীকক্ষ, ৭টি ল্যাবরেটরি, জিমনেসিয়াম, ২০০-আসনের বক্তৃতা হল এবং প্রয়োজনীয় স্থানগুলো পরিষ্কারের কাজে এই রোবটটি ব্যবহার করা হবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.