ইউরোপ।। মোহাম্মদ আল‌আমিন, বার্তা কক্ষ:

করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়েছি কিনা সেটা শনাক্ত করার জন্য আমরা সরকারি হাসপাতাল সহ বিভিন্ন ক্লিনিকে যাই। একদিকে যেমন আমরা নিজেরাও ঝুঁকিতে থাকি। অন্যদিকে আমাদের আশে পাশে যারা আছে তাদেরকে ঝুঁকিতে ফেলে দেই। এছাড়া হাসপাতালে গিয়ে দীর্ঘ লাইন তো আছেই।
সেই সমস্যা থেকে সমাধান দিতে আগামী মে মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে বাজারে আসছে করোনাভাইরাস শনাক্ত করার রেপিড কিট।সুপার মার্কেটসহ বিভিন্ন শপে কিনতে পাওয়া যাবে করোনা শনাক্ত করার এ কিট।
আপনি করোনাভাইরাস আক্রান্ত কিনা সেটা নিজেই ঘরে বসেই রেপিড কিট এর মাধ্যমে দ্রুত পরীক্ষা করতে পারবেন।
প্রাথমিকভাবে এই কীটগুলো ইউরোপের বিভিন্ন দেশে পাওয়া যাবে। সাধারণত সুপার মার্কেট ,স্টেশনারি দোকান হার্ডওয়ার এবং অন্যান্য গোসারি শপ গুলোতে খুঁজে পাওয়া যাবে এই কিট।
যেগুলোর দাম পড়বে ছয় থেকে আট ইউরো। যা বাংলাদেশী টাকায় ৬০০ থেকে ৮০০।
ফার্মাসিতে বা হাসপাতালে না গিয়ে নিজের বাড়িতে বসে  এন্টিজেন পরীক্ষা করে জানতে পারবেন আপনি করোনাভাইরাস এ আক্রান্ত কিনা।
কিটের পেটেন্টটি জিয়ামেন বোসন বায়োটেক (একটি চীনা সংস্থা) এর  এবং এটি ইউরোপে বিতরণ করার জন্য অস্ট্রিয়ান গ্রুপ টেকনোমেড, যা সিই সার্টিফিকেশন পেয়েছে এবং ইতিমধ্যে এটি ইউরোপের বিভিন্ন বাজারে বিপণন শুরু করেছে।

  সাম্প্রতিক দিনগুলিতে, পণ্যটি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় চিকিত্সা ডিভাইসের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, একটি শ্রেণিবিন্যাস যা ওষুধের বিপরীতে, এটি যে কোনও জায়গায় বিক্রি করার অনুমতি দিবে বলে সংবাদ প্রকাশ করেছে ইতালির গণমাধ্যম কোরিয়ার দেললা সেরা।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.