মধ‍্যপ্রাচ‍্য II মোহাম্মদ আল-আমিন, বার্তাকক্ষ:

সৌদি আরবে রিয়াদে গতকাল বহুল আলোচিত মোছাম্মদ আবিরন বেগমের হত্যাকাণ্ডের রায় ঘোষণা করেছে। আলোচিত এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকা আসামিদের একজনকে মৃত্যুদণ্ড ২জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে সে দেশের আদালত।

বাংলাদেশ প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছে। তারা প্রেস, বিবৃতিতে আরও জানিয়েছে যে,”সৌদি আরবে রিয়াদ এর ক্রিমিনাল কোর্ট গতকাল বহুল আলোচিত মোছাম্মদ আরফিন বেগমের হত্যাকাণ্ডের রায় ঘোষণা করেছে আদালত এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত আসামিদের মৃত্যুদণ্ড সহ ভিন্ন ভিন্ন শাস্তির আদেশ প্রদান করেছে।

মামলার প্রধান আসামি গৃহকর্তী আয়েশা আলজি জনের বিরুদ্ধে ইচ্ছাকৃত সুনির্দিষ্টভাবে হত্যাকাণ্ডের সংগঠনের জন আদালত (কাসাস)জানের বদলে জান এর রায় প্রদান করেছেন।অপর দুই আসামির একজন গৃহস্বামী বাসের সালামের বিরুদ্ধে হত্যাকাণ্ডে আলামত ধ্বংস গৃহকর্মীকে নিজ বাসার বাহিরে অবৈধ ভাবে কাজে লাগানো এবং গৃহকর্মী চিকিৎসাব্যবস্থা না করার অভিযোগে আদালত ৫০ হাজার সৌদি রিয়াল জরিমানা সহ ভিন্ন মেয়াদে ৩ বছর ২ মাস কারাভোগের আদেশ প্রদান করেছে।

আদালত মামলার আরেক আসামি ওয়ালিদ বাসের সালেমকে সাত মাস কিশোর সংশোধনাগার কেন্দ্রে থাকার আদেশ দিয়েছে।উল্লেখ্য রিয়াদের বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম ও কল্যাণ উইং এর বিচার কার্য ত্বরান্বিত করার ক্ষেত্রে কার্যকর ভূমিকা পালন করেছে।

প্রবাসী কর্মীদের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সরকার বিশেষ করে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় থেকে সকলকে সহযোগিতা প্রদান করার কথা জানিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি।

দীর্ঘ জটিলতার পর ব্র্যাকের অভিবাসন কর্মসূচির সহায়তায় দীর্ঘ ৭মাস পর তার লাশ দেশে আনা সম্ভব হয়।

আবিরন বেগম খুলনার পাইকগাছার বাসিন্দা। তিনি ঢাকার একটি রিক্রুটিং এজেন্সির মাধ্যমে ২০১৭সালে গৃহকর্মী হিসেবে সৌদি আরবে যান২৪শে মার্চ২০১৯সালে তিনি নিহত হন।

তার মরদেহ ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে হত্যাকাণ্ড বিষয়টি তুলে আসে। পরবর্তীতে সৌদি আরবের পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.