পাবেল খান চৌধুরী, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:
হবিগঞ্জের বাহুবলে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মেয়াদোত্তীর্ণ ময়দা, আটা, গুঁড়া দুধ, চিনি, তেল, ডালডা, জেল ও পঁচা-ভাঙা ডিম দিয়ে খাদ্যপণ্য তৈরী এবং বিএসটিআই এর লাইসেন্স না থাকার অভিযোগে ভ্রাম‍্যমান আদালত দুইটি বেকারিকে জরিমানা করেছে দেড় লাখ টাকা এবং সিলগালা করেছে একটিকে। মঙ্গলবার রাতে পৃথক অভিযানে এ জরিমানা প্রদান করেন বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) স্নিগ্ধা তালুকদার ও সহকারি কমিশনার (ভুমি) খৃষ্টফার হিমেল রিছিল।

আদালত সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে বিএসটিআই-এর লাইসেন্সবিহীন অবস্থায় উপজেলার মিরপুর বাজারে মশিউর আলম নামে এক ব্যক্তি ‘জিসান বেকারি’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছিলেন, যেখানে নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মেয়াদোত্তীর্ণ ময়দা, আটা, গুঁড়া দুধ, চিনি, তেল, ডালডা, জেল ও পঁচা ডিম দিয়ে তৈরী
করা হচ্ছিল বিভিন্ন ধরণের খাদ্যপণ্য। অভিযান চলাকালে উপযুক্ত প্রমাণ পাওয়ায় বেকারী মালিককে ১ লাখ টাকা জরিমানা ও বেকারীটি সিলগালা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) স্নিগ্ধা তালুকদার।

এদিকে, মিরপুর এলাকার নতুন বাজারে অবস্থিত ‘জুয়েল বেকারি’তে অন‍্য একটি অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) খৃষ্টফার হিমেল রিছিল। এ সময় নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে পণ্য উৎপাদন ও বিএসটিআই লাইসেন্স না থাকার কারণে এবং লাইসেন্স নবায়ন না করায় ‘জুয়েল বেকারি’র মালিক আব্দুল জলিলকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন খৃষ্টফার হিমেল রিছিল।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.