পাবেল খান চৌধুরী, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ জেলা শহরের উমেদনগরস্থ সিএনজি স্ট্যান্ড দখলকে কেন্দ্র করে আজ বুধবার (৭অক্টোবর) সকালে মালিক সমিতির লোকজন গাড়ি দাড় করিয়ে চার ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে রাখে। একারণে শহরের প্রধান সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

আজ বুধবার (৭অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বিভিন্ন সড়কে অবরোধ কার্যক্রম চালায় শ্রমিকরা। তন্মধ্যে ধুলিয়াখাল, নতুন বাজার, কলিমনগর, শহরের কামরাপুর, চৌধুরীবাজার পয়েন্ট, কোর্ট স্টেশন, শায়েস্তানগর পয়েন্টে অবরোধ করা হয়।

সূত্রে জানা যায়- শহরতলীর উমেদনগর ষ্ট্যান্ডটি দীর্ঘদিন যাবত জেলা সিএনজি (অটোরিকশা) মালিক সমিতি দ্বারা পরিচালিত হয়ে আসছে। এখান থেকে প্রতিদিন বিভিন্ন রোডে প্রায় ছয় শতাধিক সিএনজি চলাচল করে এবং সমিতির লোকজন প্রতি সিএনজি থেকে ১০ টাকা হারে জমা আদায় করেন। এ নিয়ে একদল শ্রমিকের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে বুধবার সকালে শ্রমিক নেতা হাবিবের নেতৃত্বে একদল শ্রমিক মালিক সমিতির লোকজনকে ধাওয়া দিয়ে স্ট্যান্ডটি দখলে নেয়। ধাওয়া খেয়ে মালিক সমিতির লোকজন ও তাদের পক্ষের শ্রমিকরা কোন উপায় না পেয়ে সদর থানার সামনে রাস্তায় সিএনজি দাড় করিয়ে অবরোধ করে।

প্রায় চার ঘন্টা ব্যাপী অবরোধ চলাকালে জেলা শহরের সাথে আঞ্চলিক সড়কের যোগাযোগ প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এতে দূর্ভোগে পড়েন সাধারণ জনগণ। খবর পেয়ে হবিগঞ্জ সদর থানার একদল পুলিশ বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করেন। অবরোধকারীদের আগামী তিন দিনের মধ‍্যে ঘটনার সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দেওয়ার পরে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়।

জেলা সিএনজি (অটোরিকশা) মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ মোতাচ্ছিরুল ইসলাম ব্যস্থতার কারণে ঢাকা থাকায় এবিষয়ে কথা বলতে পারেন নি।

জেলা সিএনজি (অটোরিকশা) শ্রমিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ জুয়েল মিয়া জানান- জেলা মালিক সমিতি দ্বারা দীর্ঘদিন যাবৎ এই স্ট্যান্ডটি পরিচালিত হয়ে আসছে। কিন্তু মিজানুর রহমান পৌর মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই স্ট্যান্ডটি দখলে নিতে পায়তারা শুরু করেন। একারণেই তাদের লোকজন স্ট্যান্ডটি দখলে নেয়।

পৌর মেয়র মিজানুর রহমান বলেন- উমেদনগরসহ বিভিন্ন সিএনজি স্ট্যান্ড থেকে মালিক সমিতির নামে প্রতি মাসে ৪০-৫০ হাজার টাকা চাঁদা নেওয়া হয়। সম্প্রতি উমেদনগর স্ট্যান্ড থেকে সমিতিকে চাঁদা দেওয়া বন্ধ করে দেয় শ্রমিকরা। আর তাতেই সমিতির লোকজন রাস্তায় অবরোধ করেছে।

হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি (তদন্ত) দৌস মোহাম্মদ জানান- তিন দিনের মধ্যে ঘটনার সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দিয়ে সিএনজি শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়েছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.