লাইফ জ্যাকেট ছাড়াই সাত অভিবাসীকে মারধর করে সমুদ্রে ফেলে দেওয়া হয়েছিল বলে তুর্কি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী টুইটারের মাধ্যমে গ্রীক উপকূলরক্ষীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর টুইটার সাইটে পোস্ট করা একটি ভিডিওসহ এই অভিযোগ নথিভুক্ত করা হয়েছে। এ ব‍্যাপারে গ্রীস সম্পূর্ণ নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া ব‍্যক্ত করেছে!

অভিবাসী II সম্পাদনা ডেস্ক:

শুক্রবার (১৯ মার্চ) তুরস্কের কোস্ট গার্ড তুর্কি শহর সেজমে সমুদ্র উপকূলে এজিয়ান সাগরের উপকূলবর্তী নদীর জলে তিন অভিবাসীর লাশ পেয়েছিল, আরও তিনজনকে উদ্ধার করা হয়েছে এবং সপ্তম অভিবাসীর সন্ধান করা হচ্ছে।

তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলাইমান সোয়েলু গ্রীক উপকূলরক্ষীর বিরুদ্ধে সাতজন অভিবাসীকে মারধর করার এবং তুরস্কের উপকূল থেকে আট কিলোমিটার দূরের গ্রীক দ্বীপ চিয়াসে লাইফ জ্যাকেট বা লাইফবোট ছাড়াই সমুদ্রের দিকে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ করেছেন।

সোয়েলু টুইটারে বলেছিলেন যে, গ্রীক উপকূলের প্রহরী “আজ রাতে সাতজন অভিবাসীকে মারধর করেছে, তাদের জিনিসপত্র জব্দ করেছে, তাদের হাত প্লাস্টিকের হাতকড়া দিয়ে বেঁধেছে এবং লাইফ জ্যাকেট বা নৌকা ছাড়াই পানিতে ফেলে দিয়েছে।”তিনি আরও বলেন যে গ্রীক কোস্টগার্ড তাদের মরতে দেখেছিল।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.