গাজীপুরের শ্রীপুরে মারধরের ভিডিও ধারণ করতে গিয়ে হামলার শিকার হয়ে মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন নিউজ ২৪ টেলিভিশনের সাংবাদিক মোহাম্মদ আল আমিন। ২৫ জুলাই রোববার সন্ধ্যায় শ্রীপুর চৌরাস্তা মাওনা রোডে এ ঘটনা ঘটে।

অপরাধ || মোহাম্মদ আদনান মামুন, নিজস্ব প্রতিবেদক:

গুরুতর আহত সাংবাদিক আল আমিনকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

সাংবাদিক আল আমিন শ্রীপুর চৌরাস্তা এলাকার আইয়ুব আলীর সন্তান ফয়সাল (২৫) ফয়সালের ভাই জাহিদ (৩০) ও শ্রীপুর রেজিষ্ট্রি অফিস এলাকার আইয়ুব আলীর সন্তান সম্রাট (২৭) কে অভিযুক্ত করে শ্রীপুর মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্র ও আল আমিন জানান, মারামারির সংবাদে তিনি সংবাদ সংগ্রহের জন্য ঘটনাস্থলে যান সেখানে গিয়ে মারধরের ভিডিও ধারন করার সময় অভিযুক্তরা তাকে বেধরক মারধর করে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়।

একপর্যায়ে অভিযুক্তরা ধারালো দা দিয়ে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় কোপ দিলে তিনি মাটিতে পড়ে যান উঠে দাঁড়ানোর পর আবারও মাথায় কোপ দিলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়ে অচেতন হয়ে পড়েন।এসময় তার মোবাইল নিয়ে যায় অভিযুক্তরা।

পরে আশেপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

তার চাচাতো ভাই হুমায়ূন কবির জানান, মাথা ও কানে মারাত্মক জখম হয়েছে। মাথায় ৮ টি ও কানে ২০ টি সেলাই দেয়া হয়েছে।

শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহফুজ ইমতিয়াজ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *